বাড়িতে একটি মন্দিরের জন্য বাস্তু শাস্ত্রের পরামর্শ/টিপস্


যখন একটি বাড়ির মন্দির বা প্রার্থনার এলাকার কথা আসে, তখন সেখানে বিভিন্ন বাস্তু শাস্ত্রের নির্দেশাবলী অনুসরণ করা উচিত,যাতে বাড়ির বাসিন্দাদের জন্য সর্বাধিক ইতিবাচক/ পজিটিভ প্রভাব নিশ্চিত করা যায়। আমরা কি করা উচিত এবং কি করা অনুচিত তা পরীক্ষা করেছি।

বাড়িতে মন্দির, একটি পবিত্র স্থান যেখানে আমরা ঈশ্বরের উপাসনা করি। সুতরাং, স্বাভাবিকভাবেই, এটি অবশ্যই একটি ইতিবাচক/পজিটিভ এবং শান্তিপূর্ণ স্থান  হওয়া উচিত। মন্দির প্রাঙ্গন যখন বাস্তু শাস্ত্র অনুযায়ী স্থাপন করা হয়, তখন সেটি বাড়ি ও তার অধিবাসীদের জন্য স্বাস্থ্য, সমৃদ্ধি ও সুখ নিয়ে আসতে পারে। যদিও একটি পৃথক পূজা ঘরই থাকাই আদর্শ, কিন্তু মহানগরীয় শহরগুলিতে, যেখানে জায়গার অভাব আছে, সেটি সবসময় সম্ভব হয় না।

মুম্বাইয়ের বাস্তু প্লাসের নীতিন পরমার বলেন, মন্দির এলাকা ঐশ্বরিক শক্তিপূর্ণ শান্তির একটি অঞ্চল হওয়া উচিত পরমার আরো বলেন যে, “এটি এমন স্থান যেখানে একজন নিজেকে সর্বশক্তিমানের কাছে আত্মসমর্পণ করে এবং শক্তি অর্জন করে। যদি কোন একজনের মন্দিরের জন্য পুরো একটি ঘরকে বরাদ্দ করার জায়গা না থাকে, তাহলে তিনি, বাড়ির উত্তর -পূর্ব অঞ্চলের দিকে, পূর্বদিকের দেওয়ালে একটি ছোট বেদী স্থাপন করতে পারেন। বাড়ির দক্ষিণ, দক্ষিণ-পশ্চিম বা দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলে মন্দির স্থাপন করা এড়িয়ে চলুন

 

বাড়ির মন্দিরের জন্য বাস্তু শাস্ত্র অনুযায়ী আদর্শ দিকনির্দেশ

জয়শ্রী ধামানি, একজন বাস্তুশাস্ত্র এবং জ্যোতিষ বিশেষজ্ঞ, ব্যাখ্যা করেন যে, বৃহস্পতি হল উত্তর-পূর্ব দিকের প্রভু, যাকে ‘ঈশানকোণ’ও বলা হয়। ধামানি বলেন, “ঈশান হল ঈশ্বর বা ভগবান। এভাবেই এটি হল ঈশ্বর /বৃহস্পতির দিক। তাই, মন্দিরটি সেদিকে রাখাই  যুক্তিযুক্ত। তাছাড়া, পৃথিবীর ঢালও শুধু উত্তর-পূর্ব দিকেই রয়েছে এবং এটি উত্তর-পূর্বের প্রারম্ভিক বিন্দু থেকে গতিশীল হয়। সুতরাং, এই কোণটি একটি ট্রেনের ইঞ্জিনের মত, যা পুরো ট্রেনটিকে টেনে নিয়ে যায়। বাড়ির এই এলাকায় মন্দির স্থাপন করাও অনেকটা এই রকম- এটি পুরো বাড়ির শক্তিগুলিকে এর দিকে টেনে নেয় এবং তারপর সেগুলোকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়”। ধামানি আরো বলেন,  বাড়ির কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত একটি মন্দির হল এমন একটি অঞ্চল যা ব্রহ্মস্থান নামে পরিচিত- যাকে মঙ্গলজনক বলেই গণ্য করা হয় এবং যা গৃহের বাসিন্দাদের জন্য জন্য সমৃদ্ধি এবং ভাল স্বাস্থ্য আনতে পারে।

 

 

বাস্তু অনুযায়ী কিভাবে বাড়িতে একটি মন্দির নির্মাণ করা উচিত

পরমার পরামর্শ দেন, যখন মন্দিরটি নির্মাণের সময় আসে, তখন এটি সরাসরি মেঝেতে রাখবেন না। এর পরিবর্তে একে একটি উঁচু মাচা বা বেদীতে রাখুন। পরমার প্রস্তাবিত করেন, “ মন্দিরটি মার্বেল পাথর বা কাঠ দিয়ে তৈরি হওয়া উচিত। কাঁচ বা এক্রিলিক দিয়ে তৈরি মন্দিরগুলি এড়িয়ে চলুন। মন্দিরটিকে এলোমেলো করে রাখবেন না। আপনি নিশ্চিত করুন যে মন্দিরে একই দেব বা দেবীর, হয় বসানো অথবা দাঁড়ানো অবস্থায়, একাধিক মূর্তি যেন না থাকে। মন্দিরে রাখা মূর্তি বা ছবিগুলি যেন ভাঙা বা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া না থাকে, এটি অশুভ হিসেবে বিবেচিত হয়।”

মন্দিরটি যেখানে রাখা হবে সেখানে যেন একজন পূজা করতে সক্ষম হয়। বিশেষ পূজার সময় পুরো পরিবার একসঙ্গে প্রার্থনা করতে চায়। অতএব, সেখানে পুরো পরিবার যাতে বসতে পারে এবং প্রার্থনা করতে পারে তার জন্য যথেষ্ট স্থান থাকা নিশ্চিত করতে হবে। মন্দির এলাকায় শক্তির ভাল ও সুস্থ প্রবাহ থাকা উচিত। তাই, এটিকে ধুলো বা মাকড়শার  জাল মুক্ত করে পরিষ্কার এবং পরিচ্ছন্ন রাখুন এবং অনেকগুলি জিনিসপত্র দিয়ে স্থানটিকে ঠাসাঠাসি করে রাখবেন না। সর্বোপরি, মন্দিরটি যেন আপনাকে প্রশস্ততা ও প্রশান্তি অনুভব করায়।

 

বাড়িতে একটি মন্দির সাজানোর জন্য কি করবেন এবং কি করবেন না

  • যে ব্যক্তি পূজা করছেন, আলো বা প্রদীপ, তাঁর ডান দিকে রাখা উচিত।
  • তাজা ফুল দিয়ে মন্দিরটি সাজান। এলাকাটিকে নির্মল করতে এবং একটি ঐশ্বরিক বাতাবরন তৈরি করতে কিছু সুবাসিত মোমবাতি, ধূপ বা ধূপকাঠি জ্বালান।
  • মৃতের/ পূর্বপুরুষের ছবিগুলি, মন্দিরের মধ্যে রাখা উচিত নয়।
  • ধূপ, পূজা সামগ্রী এবং পবিত্র বইগুলি রাখতে, মন্দিরের কাছাকাছি একটি ছোট তাক তৈরি করুন।
  • নিশ্চিত করুন যে মন্দিরের কাছে বৈদ্যুতিক পয়েন্ট রয়েছে, যাতে  উৎসবের দিনগুলিতে কেউ মন্দিরটিকে আলোকিত করতে পারে।
  • মন্দিরের নীচের এলাকায় অপ্রয়োজনীয় জিনিস বা ময়লা ফেলার জায়গা/ ডাস্টবিন রাখবেন না।
  • কেউ কেউ শোয়ার ঘরে বা রান্নাঘরে মন্দিরটি রাখেন। এই ক্ষেত্রে, যখন আপনি মন্দিরটি ব্যবহার করছেন না,তখন মন্দিরের সামনে একটি পর্দা ঝুলিয়ে রাখুন।
  • মন্দির এমন কোন দেওয়ালে রাখা উচিত নয়, যার পিছে টয়লেট আছে।  এছাড়াও, উপরের তলায় যেখানে টয়লেট আছে, তার নীচেও মন্দির স্থাপন করা উচিত নয়।
  • মন্দিরের স্থানের জন্য সাদা, ধূসর, ল্যাভেন্ডার বা হাল্কা হলুদ রঙ ব্যবহার করুন।

 

Was this article useful?
  • 😃 (0)
  • 😐 (0)
  • 😔 (0)

Comments

comments